কিভাবে ফাইবার মার্কেটপ্লেসে গিগ/সার্ভিস তৈরি করবেন । A To Z Tutorial

কিভাবে গিগ তৈরি করতে হয় সে ব্যপারে আমার জানা অভিজ্ঞতা থেকে শেয়ার করার চেষ্টা করব।

চলুন তাহলে

# গিগ কি? ও কিভাবে তৈরি করতে হয়।

গিগ হলো আপনার অফার করা একটি সার্ভিস এর নাম। প্রাথমিক ভাবে ফাইবার আপনার গিগটির মূল্য $৫ ডলারে অফার বা বিক্রি করছে কাস্টমারের / বায়ারের কাছে এবং আপনাকে গিগটি তৈরির সময় আপনার দেওয়া শর্ত অনুসারে সম্পন্ন করতে হবে। যেমন: যদি আপনি বলে থাকেন, আমি কাজটি একদিনের ভিতর শেষ করে দিবো তাহলে আপনাকে তা একদিনের ভিতর শেষ করতে হবে। নিচে টাইমারের ছবিটি লক্ষ্য করুন।  আপনি যখন গিগ তৈরি করেছিলেন তখন এই উল্ল্যখ করেছেন যে, আমি আমার অফারটি বা আমার গিগটি অর্ডার করলে, দুই (২) দিনের এর ভিতর বা পূর্বে শেষ করে দিব। যদি দুই দিন উল্ল্যেখ করে থাকেন তাহলে আপনাকে ৪৮ ঘন্টা বা দুই দিনের একটি টাইমার দেখাবে। এবার নিচের ছবিটি দেখুন যদি একটি বায়ার আপনার গিগটি অর্ডার করে তাহলে আপনার হাতে আর কতটুকু সময় রয়েছে আর কতটুকু সময় পার হয়ে গিয়েছে তা এই টাইমার দেখলেই বুঝতে পারবেন। দেখুন কাজটি সম্পন্ন করার জন্য আপনার হাতে ১ দিন, ৯ ঘন্টা, ৬ মিনিট, ৪১ সেকেন্ড, সময় রয়েছে।  এবার নিশ্চই বুঝতে পেরেছেন।

একটি গিগের নমুনাঃ 

 

চলুন শুরা করা যাক কিভাবে আমরাও একটি গিগ তৈরী করতে পারি , নিচে স্টেপ গুলো ছবি আকারে দেয়া আছে।

# এবার আসুন আরও একটু বিস্তারিত জেনে নেয় ” কিভাবে গিগ তৈরি করতে হবে”?

গিগ তৈরি করার জন্য লগ ইন করার পর ডান প্বাশে যেখানে আপনার আইডি সহ সবুজ রংয়ের ডলার চিহ্ন সহ একটি বক্স দেখতে পাবেন অথবা আপনার আইডির প্বাশে একটি ছোট্ট ডাউন এ্যরো দেখতে পাবেন। এবার ক্লিক করুন,  একটি মিনু নিচের দিকে পুল ডাউন হবে। এরপর My Sales থেকে Create A Gig, ক্লিক করুন। এখন নিচের মত একটি পেইজ দেখতে পাবেন, আসুন প্রথমে ভালমত নিচের ছবিটি ভাল করে খেয়াল করি, আমি এখানে ক্রমানুসারে বুঝাতে চেষ্টা করেছি তাই নাম্বারের সাথে ছবির নিচের বর্ননা গুলে একটু ভালো করে পড়ুন।

প্রথম ধাপ ঃ ওভারভিও

Gig Title: এখানে আপনি যে অফার বা সার্ভিসটি দিতে চাচ্ছেন তা টাইপ করবেন। যেমন: টাইটেলের শুরুতে I will এবং শেষে for $5 এই কথাটি অটোমেটিকলি বসবে, আমাদের উল্লেখ করতে হবে না। তাহলে যদি আপনি SEO, Backlink, Forum Posting, Facebook Like, Twitter, Business Card ইত্যাদি যে ধরনের কাজ হয় তার উপর গিগ তৈরি করতে চান, তাহলে আপনি এভাবে টাইটেল লিখতে পারেন  create backlink , design your professional Business Card, give you real USA Facebook Like, এরপর এরকম একটি Sentence তৈরি হবে এবং ফাইবারে ক্লাইন্ট এভাবে দেখতে পাবে “I Will write unique adroitly research article for $5” অথবা “I Will design your professional Business Card for $5 ” এবার তাহলে সুন্দর করে একটি টাইটেল টাইপ করুন, যেন অন্য কারো সাথে আপনার টাইটেলটি মিলে না যায়। আসুন দ্বিতীয় অপশনে যাই।

Category: এখানে আমরা ক্যাটাগরি সিল্কেট করবো। আপনার গিগটি যে ধরনের কাজ বা সার্ভিসের এর উপর তৈরি করতে চাচ্ছেন সে ধরনের ক্যাটাগরি সিল্কেট করুন। এখানে Category দুই ভাবে বিভক্ত প্রথমে মেইন Category select করবেন এরপর মেইন ক্যাটাগরি থেকে সাব-ক্যাটাগরি সিল্কেট করবেন।

Tags:  এটি হলো Keyword এর মত। আপনার গিগটি যে ধরনের কাজের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে সে ধরনের কাজের উপর ৫টি ওর্য়াড র্নিধারন করবেন এবং  সর্বনিম্ন ৩টি করতে হবে। যেমন: আপনি যদি SEO গিগ তৈরি করে থাকেন তাহলে, এরকম Keyword দিতে পারেন যেমন: SEO Service, WordPress SEO, SEO Marketing, Page Rank, Backlink ইত্যাদি। এছাড়া যাদের Keyword Researchএর উপর ধারনা আছে তারা আরও ভাল ভাল টেগ উল্ল্যখ করতে পারবেন এবং এর ফলে ক্লাইন্ট আপানার গিগটি সহজে খুজে পাবে এবং অর্ডার পাওয়ার সম্ভাবনা খুব বেশি থাকে।

২য় ধাপ ঃ Scope and Pricing

Duration: এখানে আপনি কত দিনের ভিতর সার্ভিসটি ডেলিভারি দিবেন তা সিল্কেট করবেন। সহজ কথায় আপনি যে সার্ভিসের উপর গিগ তৈরি করতে চাচ্ছেন প্রথমে তা চিন্তা করে নিবেন যে, আপনার সার্ভিসটি সম্পন্ন করতে কতটুকু সময় লাগবে বা অন্যরা একই সার্ভিস কতটুকু সময়ের মধ্যে ডেলিভারি দিচ্ছে। আপনি এখানে ১দিন থেকে ২৯দিন পর্যন্ত সময় নিতে পারবেন ডেলিভারি দেওয়ার জন্য। সাধারনত বেশিরভাগ গিগ ১ থেকে ২ দিনের ভিতরই ডেলিভারি হয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে আপনি যখন একটি অর্ডার পাবেন তখন চেষ্টা করবেন ১ দিন হলে ২ থেকে ৩ ঘন্টার ভিতর কাজটি শেষ করে দিতে। কারন: অনেক সময় আপনার কাজটি পচ্ছন্দ না হলে ক্লাইন্ট আপনাকে মডিফিকেশন এর জন্য পাঠাতে পারে, সে ক্ষেত্র আপনি যেন আপনার ডেলিভারি টাইম হাতে থাকতে শেষ করতে পারেন।

৩য় ধাপ ঃ ডেস্ক্রিপসন ও ফাক

Description: এই ঘরটি দেখেই বুঝতে পারছেন এখানে কি উল্ল্যেখ করা উচিত। এখানে আপনার গিগের সার্ভিস সম্বন্ধে লিখবেন। আপনি কি কি সার্ভিস দিবেন, কিভাবে দিবেন, ইত্যাদি যত ধরনের সুবিধা যা আপনি এই গিগ দিয়ে দিতে চান তা উল্ল্যেখ করবেন এবং অর্ডার পেলে তা আপনাকে করতে হবে এছাড়া ক্লাইন্টও যদি এর থেকে বেশি কিছু চায় তখন তাকেও আপনি বলতে পারবেন যে, দেখ তোমার এই সুবিধাটুকু এই গিগে নেই অথবা থাকলে আমার আরও কয়েকটি গিগে অর্ডার করতে হবে ইত্যাদি। আরও একটি ব্যপার আপনি সবার শেষে উল্ল্যখ করে দিতে পারেন তা হল, অবশ্যই গিগটি অর্ডার করার পূর্বে আপনাকে যেন একটি মেসেজের মাধ্যমে জানিয়ে দেয়। তাহলি আপনি কাজ সম্পন্ন করতে পারলে বায়ারকে অর্ডার করতে বলবেন আর না পারলেও মেসেজের রিপ্লাই দিবেন।

 ৪র্থ ধাপ ঃ Buyer Requirements

Instruction For Buyer: এখানে কাজ করার জন্য বায়ারের কাছ থেকে আপনার কি কি প্রোয়জন পড়বে তা উল্ল্যেখ করতে হবে। যেমন ধরুন ইউজার, পাসওয়ার্ড, লেআউট, কন্টেন্ট, ইমেজ ইত্যাদি। অনেক সময় দেখা যায় বায়ার আপনার গিগে অর্ডার দিয়ে বসে আছে কিন্তু তার চাহিদাটুকু না জানার কারনে আপনাকেই ডেলিভারি দিতে সমস্যায় পরতে হয়। তাই উল্ল্যেখ করে রাখলে কাজ করতে সুবিধা হয়।

৫ম ধাপ ঃ গ্যালারি/ছবি/ভিডিও

Gig Gallery:  এখানে আমরা মিনিমাম একটি ও মেক্সিমাম ৩টি ছবি দিতে পারবো তবে অবশ্যই  ছবি গুলোর স্কিন রেজুলেশন প্রস্থ (Width) ৬৮২ পিক্সেল ও উচ্চতা (Height) ৪৫৯ পিক্সেল হতে হবে। আপনি ফটোশপ দিয়ে খুব সহজে এটি করতে পারেন এছারাও আরও একটি ব্যপার ছবিটি আপনি যেপিজি (JPG) তে সেইভ করবেন অন্যথায় আপনি গ্যালারিতে এ্যাড করতে পারবেন না। এরপর চলুন গিগের বর্ননা নিয়ে আলোচনা করা যাক।

৬ষ্ট ধাপ ঃ পাবলিশ করা (১)

Save & Continue : সর্বশেষ এখানে ক্লিক করবেন এরপর যদি আপনার গিগের উপর কোন ভিডিও থেকে থাকে তা আপলোড করতে পারেন অন্যথায় Skip এ ক্লিক করে পরর্বতি পেইজে যেতে পারেন। এর পর যদি আপনি লেভের-১ বা ২ হয়ে থাকেন তাহলে গিগের উপর এক্সর্টা সার্ভিস যোগ করতে পারবেন নতুবা Skip করে পরবর্তি পেইজে গিয়ে PUBLISH GIG করুন। এরপর Congratulation  জানিয়ে আপনার গিগ তৈরি করা সম্পন্ন হয়ে যাবে।

৬ষ্ট ধাপ ঃ পাবলিশ করা (২)

 

 

সবাই চেষ্টা করবেন একটি সুন্দর গিগ তৈরি করতে। একটি গিগ দিয়ে আপনি হয়ত অনেক ইনকাম করতে পারেন। সেই লক্ষ্য নিয়ে কাজ করতে হবে। আমি ব্যক্তিগত ভাবে ফাইবারেকে একটি দোকানের মত মনে করি। কাষ্টমার আসবে অর্ডার করবে আর আমি তা ডেলিভারি দিব। আশাকরি ভাল থাকবেন, পরবর্তিতে আবার নতুন কিছু নিয়ে লেখার চেষ্টা করব।  আরও একটি কথা বাংলা লেখায় ভুল থাকতে পারে। সংশোধনরে জন্য কমেন্ট করবেন, দয়া করে। এছাড়া পুড়ো লেখাটি কিরকম হয়েছে কমেন্ট করে জানালে ভবিষ্যতে আরও লিখতে উতসাহি হবো। এছাড়াও আমাদের একটি গ্রুপ রয়েছে ফাইবার বিডি। গ্রুপের মাধ্যমে আরও অনেকে সহায়তা পেতে পারেন। আমন্ত্রন রইল আমাদের গ্রুপে। যয়েন করুন নীচের লিন্কে ক্লিক করে।

Posted in Freelancing, Marketplace, Online Earning and tagged , , , , .

One Comment

Leave a Reply